January 21, 2021
ঈদের দিন ছয় মাসের সন্তান রেখে পুঠিয়ায় মারা গেলেন নারী কন্সটেবল

ঈদের দিন ছয় মাসের সন্তান রেখে পুঠিয়ায় মারা গেলেন নারী কন্সটেবল

ঈদের দিন ছয় মাসের সন্তান রেখে পুঠিয়ায় মারা গেলেন নারী কন্সটেবল। ওই নারী কন্সটেবলের নাম সামিয়ারা খাতুন (৩৮)। আজ সোমবার সকালে ওই কন্সটেবল মারা যান। তিনি পুঠিয়া থানায় কর্তব্যরত ছিলেন। স্বামী-সন্তান নিয়ে পুঠিয়া উপজেলা সদরে থানার পাশেই ভাড়া থাকতেন।

রাজশাহীর পুঠিয়া থানার এক নারী কন্সটেবলের আকস্মিক মৃত্যু হয়েছে। ঈদের দিন সকাল ৭ টার দিকে অসুস্থ অবস্থায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হলে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
সামিয়ারা খাতুনের একটি শিশু সন্তান রয়েছে চাকুরি জনিত কারনে তিনি স্বামীকে সঙ্গে নিয়ে থানার পাশের একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে স্ট্রোক করে তার মৃত্যু হয়েছে।
সোমবার ঈদের দিন সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রাজশাহীর পুঠিয়া থানায় এ ঘটনা ঘটে। তবে ঠিক কী কারণে তার মৃত্যু হয়েছে তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। যদিও থানা পুলিশ বলছে- আকস্মিক হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

এরপরও ওই নারী পুলিশ সদস্য করোনা আক্রান্ত ছিলেন কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য মরদেহ থেকে নমুনাও সংগ্রহ করা হয়েছে।

রাজশাহীর পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম বলেন, পুলিশ সদস্য সামিয়ারা খাতুন থানাতেই অবস্থান করছিলেন। সোমবার সকালে তিনি বুকে ব্যথা অনুভব করেন। পরে তাকে পুঠিয়া হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে নেওয়ার পরপরই তার মৃত্যু হয়।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- ‘হার্ট অ্যাটাক’ করে তার মৃত্যু হয়েছে। তবে তার করোনাভাইরাস ছিল কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য তার মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। মৃতের বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ উপজেলায়। আইনি প্রক্রিয়া শেষে দুপুর ১২টার দিকে তার মরদেহ দাফনের জন্য নিজ বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোছাঃ নাজমা আক্তার মুঠোফোনে জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই ওই নারীর মৃত্যু হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to Top